সুবিধা বঞ্চিত ২৫ জন দুঃস্থ নারীকে ৬ মাসব্যাপী পল্লী উন্নয়ন প্রকল্প (পিইউপি) বগুড়া হস্তশিল্প প্রশিক্ষন প্রদান করেছে। বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে ১০ম ব্যাচে প্রশিক্ষণ প্রদান শেষে বুধবার বেলা ১২টায় বগুড়া জেলার সদর উপজেলার নামুজা ইউনিয়নের বামনপাড়া গ্রামে প্রশিক্ষনার্থীদের ভাতা ও উপকরণ বিতরণ করা হয়। উক্ত হস্তশিল্প প্রশিক্ষণ সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক সহিদুল ইসলাম খাঁন। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা সমাজসেবা কার্যালয় বগুড়া সহ উপ-পরিচালক ইয়াফাত তাসলীমা মুনিয়া। তাদের উপস্থিতিতে এবং তাদের মাধ্যমে প্রশিক্ষনার্থীদের মাঝে প্রশিক্ষণ উপকরন (যেমন কাঁচি, দর্জি ফিতা, ফ্রেম) ও প্রশিক্ষণ ভাতা বাবদ জনপ্রতি নগদ ৬৫০ (ছয় শত পঞ্চাশ) টাকা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পল্লী উন্নয়ন প্রকল্প (পিইউপি), বগুড়া প্রধান সমন্বয়কারী সেখ মোঃ আবু হাসানাত। প্রশিক্ষনটি পরিচালনা করেন পল্লী উন্নয়ন প্রকল্প (পিইউপি), বগুড়া প্রশিক্ষক আমেনা খাতুন। সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি প্রশিক্ষনার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনাদের জীবনে সফলতা আনতে হলে হাতে কলমে শিক্ষা গ্রহণের কোন বিকল্প নেই। তাই এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে একদিকে যেমন ব্যক্তি জীবনের উন্নয়ন হবে, তেমনি আত্ম কর্মসংস্থানের পাশাপাশি নারীর ক্ষমতায়ন ও সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি পাবে এবং শিশুদের উজ্জল ভবিষৎ গড়তে সহায়ক হবে বলে আমি বিশ্বাস করি। উল্লেখ্য গত ১ এপ্রিল থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।

২৫ জানুয়ারী, ২০১৮ ইং তারিখ সকাল ১১.০০ ঘটিকায় বগুড়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের  সম্মেলন কক্ষ ‘করতোয়ায়’ ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার নিয়ন্ত্রন আইনের টেকসই প্রয়োগ ও বাস্তবায়নে জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ নূরে আলম সিদ্দিকী এর সভাপতিত্বে এক অ্যাডভোকেসী সভা অনুষ্টিত হয়। উক্ত অ্যাডভোকেসী সভায় সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মহোদয় বলেন, “স্থানীয় ভাবে উৎপাদিত সকল তামাক পন্যের মোড়কে আইনসম্মতভাবে ধুমপান ও তামাকের সচিত্র স্বাস্থ্য সতর্কবানী মূদ্রণ করিতে হইবে। অন্যথায় আইন অমান্যে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। শিশুদের দ্বারা কোন অবস্থাতেই তামাকপণ্য ক্রয় বিক্রয় করা যাবে না। নতুন প্রজন্মকে তামাকের নেশা থেকে দূরে রাখতে হলে তামাক কোম্পানীর আগ্রাসন সম্মিলিতভাবে প্রতিহিত করা হবে”  

উক্ত সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন তামাক নিয়ন্ত্রণ টাস্কফোর্স কমিটির সদস্য সচিব ও সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ শামসুল হক, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল ওয়াদুদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রায়হানা ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আলীমুন রাজীব, সহকারী পরিচালক ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স মোঃ আব্দুর রশিদ, সার্কেল এ্যাডজুট্যান্ট মোঃ আছাদুজ্জামান, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ প্রতুল সি সরকার সহ জেলা তামাক নিয়ন্ত্রন টাস্কফোর্স কমিটির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ, কর্তৃত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও পাবলিক প্লেস পাবলিক পরিবহনের প্রতিনিধি।

সভায় তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের অধিকতর প্রয়োগের লক্ষ্যে পরিকল্পনা প্রনয়ণ ও কর্ম কৌশল সর্ম্পকিত  পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন এসিডির অ্যাডভোকেসী অফিসার শরিফুল ইসলাম শামীম এবং তাকে সার্বিক সহযোগীতা করেন পল্লী উন্নয়ন প্রকল্পের প্রোগ্রাম অফিসার মোঃ খায়রুল হাসান কোমল।


 

Gift card treats your friends

Just Order & Inform Where We Sent 

24/7 Customer Service

Call Us Any Time, We will be Happy to Assists.